মঙ্গলবার ২৯ নবেম্বর ২০২২
Online Edition

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম সংস্কার কাজে দীর্ঘসূত্রতা আসছে নকশায় পরিবর্তন  

স্পোর্টস রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম আধুনিকায়নের কাজ চলছে। এরই মাঝে নকশা পরিবর্তন হচ্ছে স্টেডিয়ামের। মিডিয়া বক্সের সঙ্গে শেডের কাঠামো সামঞ্জস্য না হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে বাতিল করা হয়েছে একাংশে চেয়ার বসানোর টেন্ডার। সব মিলিয়ে সংস্কার কাজের দীর্ঘসূত্রতা আরও বাড়ছে। এদিকে সরঞ্জামের মূল্যবৃদ্ধি পাওয়ায় প্রকল্প ব্যয় বাড়তে পারে বলে গণমাধ্যমে আভাস দিয়েছেন ক্রীড়া পরিষদ সচিব পরিমল সিংহ। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের খেলার মাঠে বর্ষার পানি জমে থাকে।তারপর আবার রয়েছে আলোর সল্পতা।এসব কিছুতেই আসবে পরিবর্তন। অত্যাধুনিক সাজেই বিশ্বমানের আদলে স্টেডিয়ামটিকে তৈরী করা হচ্ছে। তবে কাজের মাঝামাঝি সময়ে এসে গতি যেন কমে এসেছে।স্টেডিয়ামে চলমান ছয়টি প্রকল্পের মধ্যে সবার আগে শেষ হওয়ার কথা ছিল মাঠের কাজ। এ জন্য বাফুফেও জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে জনিয়ে দিয়েছিল তাদের চাহিদা। তবে কাজ করেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। তাই সময় গড়িয়ে গেলেও প্রস্তুত হয়নি মাঠ!জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব পরিমল সিংহ  এ ব্যাপারে  বলেন, ‘কোন ঘাসটা লাগালে তাদের ফুটবলের জন্য সুবিধা হবে, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের ( বাফুফে) সেই রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী আমরা এগোতে চাই। এখন আমরা চাচ্ছি বাফুফে আসুক এবং আমাদের দেখিয়ে দ দিক কীভাবে এটা প্ল্যান্টিং হবে। তাদের সামনে রেখেই আমরা কাজটা করতে চাচ্ছি। যেন পরবর্তীতে কোনো ঝামেলা না হয়।’ বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম সংস্কার কাজের সবচেয়ে বড় অংশ জুড়ে চলছে ছাউনি নির্মাণ। জটিলতা তৈরি হয়েছে সেখানেই। মিডিয়া বক্সের জন্য সামঞ্জস্য আনা যাচ্ছে না বর্তমান নকশায়। তাই পরিবর্তন করা হচ্ছে কাঠামো। পরিমল সিংহ বলেন, ‘মিডিয়া সেন্টার যেখানে আছে সেখানে একটু ঝামেলা হচ্ছে। যদি আমরা ওইখানে পরিবর্তন না করি তাহলে আমাদের একটু সমস্যা হবে। তাই আমাদের এইখানে কিছুটা রিডিজাইন করতে হবে।দুই ধাপে বসানো হবে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে চেয়ার। এর মধ্যে ভিআইপি বক্সের টেন্ডার ঠিক থাকলেও বাতিল করা হয়েছে গ্যালারি অংশের কাজ। এছাড়া নির্মাণসামগ্রীর মূল্য বাড়ায় বাড়তে পারে প্রকল্প ব্যয়ও।জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব বলেন, ‘চেয়ারের দুটি পার্ট আছে, যেটা হচ্ছে ভিআইপি চেয়ার, আরেকটা হচ্ছে লোকাল চেয়ার। লোকাল পার্টের দুইটা টেন্ডার হয়েছিল তবে তা কোয়ালিফায়েড হয়নি। তবে কিছুটা পরিবর্তন তো হবেই।'স্টেডিয়ামে চলা ছয়টি প্রোজেক্ট শেষ হলে টেন্ডার হবে ফ্লাড লাইট ও এলইডি স্ক্রিনের। এনএসসি বলছে, সে আলোচনাও এগিয়েছে বহুদূর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ