ঢাকা, সোমবার 27 September 2021, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

ঢাকা ও কুমিল্লায় ভোট ছাড়াই পাশ হচ্ছেন আ.লীগের দুই প্রার্থী 

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থী।

বুধবার ঢাকায় তিন প্রার্থী সরে দাঁড়িয়েছেন। ইতোমধ্যে কুমিল্লায়ও একজন প্রত্যাহার করেছেন মনোনয়নপত্র। তবে সিলেট-৩ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন এখনও চারজন।

বৃহস্পতিবার প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। এদিন একক প্রার্থীদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করবেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং করমকর্তা।

২৮ জুলাই এ তিন আসনে উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণের কথা রয়েছে।

ঢাকা-১৪ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার জানান, বুধবার তিনজন বৈধ প্রার্থী- জাতীয় পার্টির মোস্তাকুর রহমান, জাসদের মো. আবু হানিফ, বিএনএফের এ ওয়াই এম কামরুল ইসলাম মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী আগা খান মিন্টু এখন একক প্রার্থী হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহ জালাল জানান, বাছাইয়ে দুজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়পত্র বাতিল হয়েছিল; এর মধ্যে একজন মনিরুজ্জামান প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেছিল। বুধবার আপিল না মঞ্জুর হয়েছে।

সেক্ষেত্রে একক প্রার্থী হিসেবে আগা খান মিন্টুকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করে শুক্রবার গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে।

কুমিল্লা প্রতিনিধি কাজী এনামুল হক জানান, জাতীয় পার্টির মো. জসিম উদ্দিন ইতোমধ্যে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন।

সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের আবুল হাসেম খান একক প্রার্থী রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষ হওয়ার পর রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক একক প্রার্থীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করবেন।

সিলেট-৩ উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ইসরাইল হোসেন জানান, কেউ এখনও মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেনি। তবে বৃহস্পতিবারও সময় রয়েছে।

ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধতার বিরুদ্ধে আপিল করেছিলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী। আপিল না মঞ্জুর হওয়ায় প্রার্থিতা বহাল রয়েছে আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমানের।

দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়পত্র বাছাইয়ে বাতিল হয়েছিল; আপিল শুনানিতেও তাদের আপিল গৃহীত হয়নি।

আওয়ামী লীগ ছাড়া এ আসনে লড়ছেন জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী (বিএনপির সাবেক এমপি) শফি আহমদ চৌধুরী।-বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ