ঢাকা, রোববার 26 September 2021, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ জোরশোরে টিকাদান কর্মসূচি জারি রাখলেও ডেল্টা প্লাস নামের নতুন একটি ভ্যারিয়েন্ট আলোচনায় চলে এসেছে। ভারতে প্রথম শনাক্ত হওয়া উচ্চ সংক্রমণশীল ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য পদক্ষেপ নিলেও অন্তত ৯টি দেশে ধরন পাল্টানো ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের স্ট্রেইন শনাক্ত হয়েছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এখবর জানিয়েছে।

ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের নাম বি.১.৬১৭.২.১। এখন পর্যন্ত ভ্যারিয়েন্টটির বিস্তারিত অনেক কিছুই জানা যায়নি। কিন্তু যে উল্লেখযোগ্য তথ্য পাওয়া গেছে তা হলো, এই নতুন স্ট্রেইনটি মনোকলোনাল অ্যান্টিবডি ককটেল প্রতিরোধী।

মঙ্গলবার ভারত ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টে অন্তত ২২ জন আক্রান্ত বলে জানিয়েছে। ভারত সরকার এটিকে ভ্যারিয়েন্ট অব ইন্টারেস্ট ঘোষণা করেছে। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট থেকে পরিবর্তিত হওয়া ডেল্টা প্লাসকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন বলে তালিকাভুক্ত করেছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুসারে, ভারতসহ অন্তত ৯টি দেশে এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। এসব দেশের মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, পর্তুগাল, সুইজারল্যান্ড, জাপান, পোল্যান্ড, নেপাল, চীন ও রাশিয়া।

ভারতীয় কর্মকর্তারা বলছেন, ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ ক্ষমতা ও ভয়াবহতা সম্পর্কে এখনও জানা যায়নি। দেশটির নীতি আয়োগ সদস্য ভিকে পাল বলেন, ভ্যারিয়েন্ট অব ইন্টারেস্ট ডেল্টা প্লাসকে এখনও ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়নি। সংক্রমণের ভয়াবহতা ও তীব্র ছোঁয়াচে ক্ষমতার কারণে মানবজাতির জন্য ভয়াবহ হতে পারে এমন ধরনকে ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্নের আওতাভুক্ত করা হয়।

বিশেষজ্ঞদের বরাতে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এই প্রজাতির সংক্রমণে করোনার চেনা উপসর্গ দেখা যাচ্ছে না মানব শরীরে। সংক্রমণের উপসর্গ জানতে না পারায় উদ্বিগ্ন ভারতের চিকিৎসকরা। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ