ঢাকা, বুধবার 21 October 2020, ৫ কার্তিক ১৪২৭, ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

মানবিক সংকটের মুখে পড়তে পারে লেবানন : জাতিসংঘ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: লেবাননের রাজধানী বৈরুতে গত মঙ্গলবার ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় দেশটি মানবিক সঙ্কটে পড়তে যাচ্ছে বলে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। বন্দর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় খাদ্য সরবরাহে বাধা ও দাম বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণের পর থেকে লেবানন ইতিমধ্যে অর্থনৈতিক মন্দায় ভুগছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, লেবাননের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখনো তিনটি হাসপাতাল চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য কার্যকর হয়ে ওঠেনি।

বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচির (ডব্লিউএফপি) এক মুখপাত্র জানায়, লেবানন প্রায় ৮৫ শতাংশ খাবার আমদানি করে। ডব্লিউএফপি এরই মধ্যে বৈরুতবাসীর জন্য পাঁচ হাজার প্যাকেট খাবার পাঠিয়েছে। প্রতি প্যাকেট খাবারে পাঁচ সদস্যের পরিবার একমাস চলতে পারবেন।

দেশটিতে বিস্ফোরণের আগে শতকরা ৭৫ ভাগ মানুষের সাহায্যের প্রয়োজন ছিলো, এর মধ্যে শতকরা ৩৩ ভাগ মানুষ তাদের চাকরি হারিয়েছেন। শুধু তাই নয় দেশটিতে দশ লাখের মত মানুষ এখন দারিদ্র্য সীমার নিচে বাস করছে।

বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫৪ জন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৫ হাজার মানুষ। আর বাড়িছাড়া হয়েছেন প্রায় ৩ লাখ। তবে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, লেবাননের রাজধানী বৈরুত বন্দরে শক্তিশালী রাসায়নিক বিস্ফোরণে সরকারি অবহেলার অভিযোগ এনে দেশটিতে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন হাজারো মানুষ। দেশটির পার্লামেন্ট ভবনের কাছে স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় বিক্ষোভ শুরু হয়। আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ ও বিক্ষোভ দমন করতে পুলিশ জলকামান ও কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এর আগে, ২০১৩ সাল থেকে দুই হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট অনিরাপদ অবস্থায় ফেলে রাখা হয়েছিল বৈরুত বন্দরে। ওই রাসায়ানিক মজুত থেকে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বিকেলে শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ। এখনো নিখোঁজ বহু মানুষ। তাই হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। ইতোমধ্যেই, তিন লাখের বেশি মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছেন।

এদিকে লেবাননের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এএনএ জানিয়েছে, বিস্ফোরণের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৬ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে বন্দরের মহাব্যবস্থাপকও রয়েছেন। এছাড়াও, বিস্ফোরণের পর বুধবার স্থানীয় এমপি মারওয়ান হামাদহসহ আরো দুই শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছেন।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ