ঢাকা, বৃহস্পতিবার 01 October 2020, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

রিজেন্ট হাসপাতালের ৭ জনের ৫ দিনের রিমান্ড

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা না করেই জাল সনদ দেয়াসহ দুর্নীতির নানা অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপকসহ ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্যে ৭ আসামির ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে ঢাকা মূখ্য মহানগর হাকিম আদালত।

আজ বুধবার (৮ জুলাই) আসামি আটজনকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে তাদের বিরুদ্ধে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উত্তারা থানার পরিদর্শক আলমগীর গাজী।

পরে শুনানি শেষ ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী সাতজনের প্রত্যেকের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আসামিরা হলেন- রিজেন্ট হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আহসান হাবীব (১), হেলথ টেকনিশিয়ান আহসান হাবীব (২), হেলথ টেকনোলজিস্ট হাতিম আলী, রিজেন্ট গ্রুপের প্রকল্প প্রশাসক মো. রাকিবুল ইসলাম, রিজেন্ট গ্রুপের মানবসম্পদ কর্মকর্তা অমিত বণিক, রিজেন্ট গ্রুপের গাড়িচালক আবদুস সালাম ও হাসপাতালের কর্মী আবদুর রশিদ খান জুয়েল।

তবে আট আসামির মাঝে একজন শিশু হওয়ায় আদালত তাকে গাজীপুরের কিশোর সংশোধীতে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে করোনা পরীক্ষা না করেই সার্টিফিকেট দেওয়াসহ নানা প্রতারণার অভিযোগে রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ করিমকে প্রধান আসামি করে ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করে র‌্যাব।

গত সোমবার (৬ জুলাই) রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় ভ্রাম্যমাণ আদলত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম। অভিযানে ভুয়া করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়ম উঠে আসে। পরে সেখান থেকে আটজনকে আটক করে র‌্যাব হেফাজতে নেয়া হয়।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ