ঢাকা, রোববার 20 September 2020, ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

বিজিবির সঙ্গে ‘গোলাগুলিতে’ ২ রোহিঙ্গা নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: কক্সবাজারের টেকনাফে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে ‘গোলাগুলিতে’ দুই রোহিঙ্গা মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বিজিবির তিনজন সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বিজিবি।

নিহতরা হলেন- উখিয়া কুতুপালং ৫ নম্বর ক্যাম্পের জি ২/ই ব্লকের মোহাম্মদ শফির ছেলে মো. আলম (২৬) ও বালুখালী ২ নম্বর ক্যাম্পের কে-৩ ব্লকের মো. এরশাদ আলীর ছেলে মো. ইয়াছিন (২৪)।

রোববার (৬ জুলাই) দিবাগত রাতে টেকনাফের হ্নীলার ওয়াব্রাং গ্রামের নাফ নদের তীরে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফায়সাল হাসান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

লে. কর্নেল ফায়সাল হাসান খান জানান, টেকনাফের হ্নীলার ওয়াব্রাংয়ের নানীরবাড়ি অংশ দিয়ে মিয়ানমার থেকে মাদকের চালান আসার খবরে সেখানে অবস্থান নেন বিজিবির সদস্যরা। এ সময় কয়েকজন লোককে নাফ নদ সাঁতরে কিনারায় আসতে দেখে চ্যালেঞ্জ করলে তারা বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এতে বিজিবির তিন সদস্য আহত হন।

তিনি আরও জানান, বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করে। উভয় পক্ষের মধ্যে ৪-৫ মিনিট গুলি বিনিময় হয়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি চালিয়ে ৫০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি চায়না পিস্তল ও দুই রাউন্ড কার্তুজ এবং গুলিবিদ্ধ দু’জনকে উদ্ধার করা হয়।

গুলিবিদ্ধদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করে। সেখানে নেয়ার পর তাদের মৃত্যু হয়। তাদের সঙ্গে থাকা আরো একজন মাদক কারবারি কেওরা বাগানের দিকে পালিয়ে যায়।

বিজিবি কর্মকর্তা আরও জানান, এ ঘটনায় টেকনাফ থানায় পৃথক আইনে মামলা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ