বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

প্রবৃদ্ধিনির্ভর বাজেট জনকল্যাণ নিশ্চিত করতে পারে না

মানুষের অংশগ্রহণ নিশ্চিত ব্যতিরেকে সার্বজনীন ও কল্যাণমূলক বাজেট তৈরি করা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন ড. আদিল। বাজেটে ঘোষিত ‘সামাজিক নিরাপত্তা খাতে বরাদ্দ অপ্রতুল’ উল্লেখ করে সামাজিক নিরাপত্তার জাল বৃদ্ধির পরামর্শ দেন তিনি। এছাড়া পরিবহন, বিদ্যুৎসহ বিভিন্ন খাতে মেগা প্রজেক্টগুলোর করোনা বাস্তবতায় পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যৌক্তিক ও বাস্তবসম্মত প্রভাব বিশ্লেষণ করে বাজেট বরাদ্দ প্রয়োজন। একই সঙ্গে পৌরসভাগুলোতে বরাদ্দ বৃদ্ধির মাধ্যমে বড় শহরগুলোর ওপর চাপ কমানো এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে বিগত বছরের বাজেট ও প্রকল্প ব্যয়ের গুণগত সমীক্ষা বিবরণী জনগণের নিকট উপস্থাপনের দাবি জানান বিআইপি’র সাধারণ সম্পাদক।
অধ্যাপক আকতার মাহমুদ আশা প্রকাশ করেন, বাজেটে অর্থ বরাদ্দের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় নীতিসহায়তা প্রস্তাবনার মাধ্যমে জনগণের জীবনমান ও আর্থসামাজিক উন্নয়নের দিকে সরকার দৃষ্টি দেবে।
জনস্বাস্থ্যকে প্রাধান্য দিয়ে নগর পরিকল্পনা প্রণয়ন; দেশের ভৌত ও অবকাঠামোগত প্রকল্প প্রণয়নে সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে পরিবেশ সুরক্ষায় গুরুত্ব প্রদান; বাজেটে কৃষি ও পরিবেশ সংশ্লিষ্ট খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি; বাজেটের প্রকল্প নির্বাচনে রাজনৈতিক প্রভাবকে গুরুত্ব না দিয়ে প্রকল্পের গুণগত মান ও প্রভাবকে বিবেচনায় নেয়া; শহর এলাকায় টেকসই যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়তে পথচারী ও সাইকেলবান্ধব অবকাঠামো নির্মাণে প্রকল্প বরাদ্দ প্রদানসহ বিভিন্ন প্রস্তাবনা দেন অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া বিশেষজ্ঞগণ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ