ঢাকা, শুক্রবার 10 July 2020, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ জিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

চীনে করোনা টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: চীন করোনা টিকার পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে ।পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য প্রথম দফায় ৫০০ জন স্বেচ্ছাসেবক নির্বাচন করা হয়েছে। এর পরের স্তরের জন্য আরেকটি দল গঠন করা হচ্ছে। অন্য দেশ থেকে চীনে ফেরা মানুষের মাধ্যমে দ্বিতীয় দফায় এই ভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যে দেশটির পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্ত এলো। খবর আলজাজিরার। 

টিকা দুটির উন্নয়ন ঘটিয়েছে বেইজিংভিত্তিক সিনোভেক বায়োটেক ও উহানের ইনস্টিটিউট অব বায়োলজিক্যাল প্রডাক্টস।

এর আগে গত মার্চে বেইজিং ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য একটি টিকার অনুমোদন দিয়েছিল। ওই টিকা তৈরি করে দেশটির মিলিটারি একাডেমি পরিচালিত মিলিটারি মেডিকেল সায়েন্সেস ও জৈবপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠান কেনসিনো বায়ো।

এ হিসেবে বলা যায়, চীন ভিন্ন ভিন্ন তিনটি টিকা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পরীক্ষণ করছে। দেশটির ন্যাশনাল হেলথ কমিশন এ-ও বলে রাখছে, যদি এই টিকার কার্যকারিতা সফল হয় তাহলে তারা বিশ্বব্যাপী ব্যাপক উৎপাদনে যেতে পারবে।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন এতথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছে, টিকা দুটির পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চালিয়ে যাওয়া হবে। টিকার কার্যকারিতা সফল হলে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক উৎপাদনে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

হংকং ইউনিভার্সিটির প্যাথলজির ক্লিনিক্যাল প্রফেসর জন নিকলস বলেন, এই সিদ্ধান্তটি খুবই সাহসী। হঠাৎ করেই মানবদেহে টিকা প্রয়োগ করা যায় না। প্রথমে ছোট প্রাণী, তার পর বনমানুষ, এরপর পর্যায়ক্রমে মানব শরীরে প্রয়োগ করতে হয়।

উল্লেখ্য, বিশ্বে বর্তমানে করোনাভাইরাসের অনুমোদিত কোনো টিকা নেই। সারা বিশ্বে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ২০ হাজার লোকের প্রাণহানি এবং প্রায় ২০ লাখ লোক আক্রান্ত হয়েছে। আগামী ১৮ মাসের মধ্যে করোনাভাইরাসের টিকা তৈরি হয়ে যাবে বলে বিশেষজ্ঞরা আশা করছেন।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ