সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

খুলনায় বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধিতে প্রি-পেইড মিটারে মোবাইল রিচার্জ বন্ধ 

খুলনা অফিস : খুলনাসহ সারা দেশে একযোগে বাড়ানো হয়েছে বিদ্যুতের মূল্য। যা গত পহেলা মার্চ থেকে কার্যকর করা হয়েছে। তবে খুলনায় প্রি-পেইড মিটার গ্রাহকদের ভোগান্তি বেড়েছে। একদিকে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি, অন্যদিকে মোবাইল রিচার্জ করতে না পারার ভোগান্তি জেঁকে বসেছে নাগরিক জীবনে। বিদ্যুৎ অফিসে হচ্ছে দীর্ঘ লাইন। প্রি-পেইড মিটার গ্রাহক মো. আহসানউল হক, নয়ন সরদার বলেন, একদিকে বাড়ানো হলো বিদ্যুতের দাম। পাশাপাশি বিদ্যুৎ অফিসে এসে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে ঘন্টার পর ঘন্টা। ভোগান্তি ছাড়া আর কিছুই নেই।

বৈকালী বাজার এলাকার টেলিকম ব্যবসায়ী মো. আজিম বলেন, আমরা এখনও পর্যন্ত মোবাইলের মাধ্যমে প্রি-পেইড মিটারে রিচার্জ করতে পারছি না। আজও অনেক গ্রাহক চলে গেছে। তবে প্রথমবার নাকি কম্পিউটারের সফ্টায়ায় আপডেট এর জন্য এমন সমস্যা হচ্ছে। দশদিন ধরে রিচার্জ করতে পারছিনা।

খলনা সাব-ডিভিশন ২ এর নির্বাহী পরিচালক হাবিবুর রহমান বলেন, প্রথম পর্যায়ে এটা কোনো ঝামেলা বা ভোগান্তি না। কারণ প্রথম মোবাইল রিচার্জে নয়, লাইনের একশ’ আশি ডিজিটের কোড আসছে। যে কারণে কোনো মোবাইল ব্যবসায়ী রিচার্জ করছেন না। প্রথম পর্যায়ে আমাদের অফিস থেকে প্রি-পেইড মিটারে রিচার্জ করে নিতে হবে। তবে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়নি। গ্রাহকদের সহনশীল করে বিদ্যুতের মূল্য বাড়িয়েছে। এ বছর পহেলা মার্চ থেকে সাধারণ গ্রাহক পর্যায়ে খুচরা প্রতি ইউনিটের দাম ৬ টাকা ৭৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৭ টাকা ১৩ পয়সা। পাইকারিতে বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিট গড়ে ৪০ পয়সা বেড়েছে। ৪ টাকা ৭৭ পয়সা থেকে বেড়ে প্রতি ইউনিটের দাম হয়েছে ৫ টাকা ১৭ পয়সা। নিম্ন মধ্যবিত্ত গ্রাহক যারা ৭৫৯ টাকা দিতেন, প্রতি মাসে তাদেরটা বেড়ে হবে ৮০৩ টাকা। কৃষিতে সেচ গ্রাহক যারা তাদের মধ্যে যারা ৩২৬০ টাকা দিতেন, তাদের এখন ৩৪৪৮ টাকা দিতে হবে। আবাসিকে লাইফ লাইন গ্রাহকদের সর্বোচ্চ ১৭৫ টাকার পরিবর্তে এখন গুণতে হবে সর্বোচ্চ ১৮৭ টাকা। প্রথম ধাপের ০ থেকে ৭৫ ইউনিট গ্রাহকদের আগের ৩০০ টাকার পরিবর্তে এখন এনার্জি চার্জ বাবদ গুণতে হবে ৩১৪ টাকা, দ্বিতীয় ধাপের ৭৬ থেকে ২০০ ইউনিট গ্রাহকদের আগের ১০৯০ টাকার পরিবর্তে এখন গুণতে হবে ১১৪৪ টাকা, তৃতীয় ধাপের ২০১ থেকে ৩০০ ইউনিটের গ্রাহকদের ১৭১০ টাকার পরিবর্তে গুণতে হবে ১৮০০ টাকা, চতুর্থ ধাপের ৩০১ থেকে ৪০০ ইউনিট গ্রাহকদের ২৪০৮ টাকার পরিবর্তে গুণতে হবে ২৫৩৬ টাকা, পঞ্চম ধাপে ৪০১ থেকে ৬০০ ইউনিট গ্রাহকদের ৫৫৮০ টাকার পরিবর্তে ৫৯৬৪ টাকা গুণতে হবে। ৬০০ ইউনিটের বেশি ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৬৪২০ টাকার পরিবর্তে ৬৮৭৬ টাকা গুণতে হবে। মাসিক বৃদ্ধি ১ টাকা থেকে ৫ টাকার মধ্যে। এই মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব খুলনায় এখনও পড়েনি। কিছুদিনের মধ্যে সব ভোগান্তি ঠিক হয়ে যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ