বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

কাউখালী বন্দরের প্রধান সড়কের বেহাল দশা

কাউখালী : পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার প্রধান সড়কের বেহাল দশা

কাউখালী (পিরোজপুর) সংবাদদাতা : পিরোজপুরের কাউখালীর ডাক বাংলো থেকে রেজিষ্ট্রি অফিস, প্রেস ক্লাব, ভূমি অফিসের সামনে হয়ে কৃষি ব্যাংক পর্যন্ত সড়কের করুন দশা। এ সড়কটি দিয়ে প্রতিনিয়ত স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, অফিসগামী হাজার হাজার লোকসহ ছোট বড় যানবাহন চলাচল করে। রাস্তাটির অবস্থা এতটাই করুণ যে সামান্য বৃষ্টি হলেই পানিতে তলিয়ে লোক চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যায়। এছাড়া ছোট বড় খানা খন্দকের সৃষ্টি হয়ে কাদা মাটি বেড় হয়ে গেছে শুকনো মৌসুমেও রাস্তা দিয়া যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। বিকল্প সড়ক না থাকায় পানিতে ভিজেও লোকজন চলাচল করতে বাধ্য হয়। পান্নু এন্ড ব্রাদার্স এর স্বত্বাধিকারী পান্ন জমাদ্দার জানান, সামান্য বৃষ্টি হলেই এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা দুরহ ব্যাপার ভিজে গিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালাতে হয়। রাস্তাটি ২০০৭ সনে সংস্কারের পর থেকে আজ পর্যন্ত কোনো সংস্কার কিংবা নির্মাণের কাজ করা হয়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান এস,এম আহসান কবীর জানান, এক বছর পূর্বে এই রাস্তার ওয়ার্ক অর্ডার হলেও ঠিকাদারা কাজ করতেছে না। এ নিয়ে সড়ক ও জনপদের উর্দ্ধতন কর্তপক্ষকে বার বার অবহিত করা হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না।

জায়গা দখলের অভিযোগ

পিরোজপুরের কাউখালীতে ডিসিআর এর সরকারি সম্পত্তি জোর পূর্বক দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায় উপজেলার পারসাতুরিয়া গ্রাম নিবাসী মৃত: সামছুল হক মিঞার পুত্র ইজবাদ মিয়ার নামে সরকার চিরাপাড়া মৌজার ১নং খাস খতিয়ানের ২৯৪৮ নং দাগের (কা:)/০৮-০৯ নং মোকদ্দমা মুলে ভিটি লিজ প্রদান করেন। লিজ ইজবাদ মিঞা নিয়মিত রাজস্ব প্রদান করে ব্যবসা কেন্দ্র স্থাপন করে, নিয়মিত ব্যবসা বাণিজ্য চালিয়ে আসছে। ইজবাদ মিঞা অভিযোগ করেন আমার দখলকৃত ডিসিআর সম্পত্তি একাংশ হেপিয়া বেগম দখল করে নিয়েছে। তার নামে একটি ডিসিআর থাকলেও তিনটিরও বেশি ডিসিআর এর জায়গা দখল করে আছে। এবং উক্ত ব্যক্তির নামে বেনামে কয়েকটি ভিটি রয়েছে। হেপিয়া বেগম জানান, এ অভিযোগ সঠিক নয় ইহা মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন তহশিলদার কামরুন নাহার জানান, আমি অভিযোগ পেয়েছি, সরেজমিন তদন্তের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ