শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

হুমকির মুখে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় পেলেন আফগান নারী বৈমানিক

৩ মে, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল : আফগান বিমান বাহিনীর প্রথম নারী পাইলট ক্যাপ্টেন নিলুফার রাহমানিকে আশ্রয় দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তাঁর আইনজীবী এই তথ্য জানিয়েছেন।২৭ বছর বয়সী নিলুফার যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় পাওয়ার বিষয়টি সোমবার জানতে পারেন। ১৬ মাস আগে তিনি প্রথম যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় চেয়েছিলেন।নিজ দেশে নিলুফার ও তাঁর পরিবার একাধিকবার হত্যার হুমকি পেয়ে আসছিলেন। 

এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় চান।আশ্রয় পাওয়ার পর মঙ্গলবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে নিলুফার বলেন, ‘আমি সত্যিই খুব আনন্দিত। আশ্রয় পাওয়ার ক্ষেত্রে যাঁরা অবদান রেখেছেন, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞ। এখন আমি আমার স্বপ্নের পেশায় ফিরতে চাই।’নিলুফারের আইনজীবী কিম্বারলি মটলি বলেন, তাঁর মক্কেল আফগান জঙ্গিদের কাছ থেকে হত্যার হুমকি পেয়েছেন। আত্মীয়-স্বজন, এমনকি আফগান কর্মকর্তারাও তাঁর নিন্দা করেছেন। হত্যার হুমকির কারণে তাঁর পরিবার একাধিকবার থাকার স্থান পরিবর্তন করেছে। আফগানিস্তানে ফিরলে তাঁকে জীবন নিয়ে শঙ্কায় থাকতে হতো।প্রশিক্ষণের জন্য নিলুফার ২০১৫ সালে প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন।২০১৩ সালে ২৫ বছর বয়সে নিলুফার আফগানিস্তানের প্রথম নারী হিসেবে ফিক্সড-উইং পাইলট হন।নিলুফার ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ‘ইন্টারন্যাশনাল উইম্যান অব কারেজ অ্যাওয়ার্ড’ পান। তিনি তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামার প্রশংসা কুড়ান। নিলুফার জানিয়েছেন, বাণিজ্যিক বা মার্কিন বিমান বাহিনীর পাইলট হিসেবে তিনি উড়োজাহাজ চালনার কাজ চালিয়ে যেতে চান। নিলুফারের আইনজীবী জানান, বিমান চালানোর পেশায় আসার ব্যাপারে আফগান নারীদের উৎসাহিত করে যেতে চান তাঁর মক্কেল। একই সঙ্গে যেভাবে সম্ভব সেভাবে আফগান সরকারকে সহায়তা করতে চান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ