বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ভারতীয় সেনাপ্রধানের বক্তব্য বাংলাদেশের জন্য উদ্বেগজনক -সুশীল ফোরাম

চীন ও পাকিস্তানের সাহায্য নিয়ে উত্তর-পূর্ব ভারতে বাংলাদেশীরা অনুপ্রবেশ করছে বলে ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মন্তব্যকে অত্যান্ত উদ্বেগ ও ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করেন সুশীল ফোরামের সভাপতি মোঃ জাহিদ, তিনি মনে করেন এর মাধ্যমে বাংলাদেশের উপর মনস্তাত্ত্বিক চাপ সৃষ্টির  চেষ্টা করা হচ্ছে। কারণ চীনের কাছ থেকে বাংলাদেশ সাব-মেরিন কেবিল কেনার পর থেকে বাংলাদেশের উপর ভারতের সেনা কর্মকর্তারা চাপ সৃষ্টির চেষ্টা করে যাচ্ছেন। ফোরামের সভাপতি মোঃ জাহিদ মনে করেন রোহীঙ্গাদের নির্মূল অভিযানে দেশটি মিয়ানমারকে সমর্থন দিয়েছে, এর মাধ্যমে মুসলিমদের বিতাড়নে একটি পরীক্ষা তার করেছে।
এখন আসাম থেকে মুসলিমদের বিতাড়নের একটি পরিকল্পনা তাদের থাকতে পারে। আসামে যখন নাগরিকত্ব নিয়ে নানা প্রক্রিয়া চলছে তখন ভারতীয় সেনাপ্রধানের এই বক্তব্য বাংলাদেশের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। ভারতের বিজেপি সরকার মুসলিম বিদ্বেষী উসকানীমূলক প্রচারণা চালাচ্ছে। সেই মুহূর্তে ভারতের সেনাপ্রধানের বক্তেব্যের মাধ্যমে তার প্রতি প্রকাশ্যে সমর্থন দিয়েছেন। গত মাসে নাগরিক তালিকা প্রকাশের আগ থেকে আমাদের বাংলাভাষীরা নানাভাবে ধরপাকড় ও নিপীড়নের মধ্যে আছে।
গোরালপাড়া, কোকড়াঝাড়, শিলচর, দিব্রুগড়, জোড়হাট, তেজপুর, নামক স্থানে কারাগারের মত করে ডিটেনশন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে বলে ভারতের গণমাধ্যমে খবর এসেছে।
গত মাসে আসামের যে নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তাতে বেশির ভাগ মুসলমানদের নাম বাদ দেয়া হয়। এর মাধ্যমে আসামের অলইর্ন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট নামের একটি রাজনৈতিক দলের নেতা ও নয় বছর ধরে লোক সভার সদস্য বদরউদ্দিন আজমলের নাম তালিকায় ছিল না। ভারতের সেনাপ্রধান এ রাজনৈতিক দলকে নিয়ে আক্রমন করেছেন এবং এ নিয়ে ভারতের ভিতরে বির্তকের সৃষ্টি হয়েছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ