বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

পৃথিবীর সবচেয়ে নিকটে ছিল চাঁদ সুপারমুন দেখলো বিশ্ববাসী

সুপার মুন উপভোগ করছে অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দারা       -ডেইলি মিরর

 

১ জানুযারি, ডেইলি মিরর : খ্রিস্টীয় বর্ষপঞ্জির বিশ্ববাসী দেখতে যাচ্ছে ‘সুপারম্যান’খ্যাত বিরল দৃশ্য। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার চাঁদ চলে আসে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে। স্বাভাবিক আকৃতির পূর্ণ চাঁদের চেয়ে এটিকে এদিন ৭ শতাংশ বড় দেখা যায়। বিশ্বের প্রান্ত থেকে চাঁদটি দেখা যায়।

চাঁদ পৃথিবীর সবথেকে কাছে চলে আসার দিনটিকে সুপারমুন আখ্যা দিয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞান। আন্তর্জাতিক মান সময় সোমবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে এই সুপারমুন দেখা যায়। এটি স্বাভাবিক পূর্ণ চাঁদের চেয়ে ৭ শতাংশ এবং মাইক্রোমুনের চেয়ে ১২-১৪ শতাংশ বড় ছিল।

১৯৭৯ সালে জ্যোতির্বিজ্ঞানী রিচার্ড নোল ‘সুপারমুন’ কথাটির প্রবর্তন করেন। আমেরিকান আদি জনগোষ্ঠী একসময় একে ‘উলফ মুন’ বা ‘নেকড়ে চাঁদ’ নামে ডাকতেন। বছরের এই সময়ে ক্ষুধার্ত নেকড়েরা তাদের ক্যাম্পের বাইরে গর্জন করতো। বিজ্ঞানীরা বলছেন, ২০১৮ সালের এই ‘উলফ মুনটিও সুপারমুন।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, উপবৃত্তাকার কক্ষপথে পৃথিবী থেকে চাঁদের এই নিকটতম অবস্থানকে অনুভূ বা পেরিজি বলা হয়। এই সময় চাঁদ পৃথিবী থেকে ৩ লাখ ৫৬ হাজার ৯৯১ কিলোমিটার বা ২ লাখ ২১ হাজার ৮২৪ মাইল দূরত্বে অবস্থান করবে। পৃথিবী থেকে চাঁদের গড় দূরত্ব ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০২ কিলোমিটার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ