শনিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২০
Online Edition

ভেড়ামারায় স্কুল ছাত্রীকে গাছে ঝুলিয়ে হত্যা ॥ প্রেমিক পলাতক

ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় উর্মি খাতুন (১৩) নামের মেধাবী এক স্কুল ছাত্রীকে গাছে ঝুলিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সে গোলাপনগর বাঙ্গালপাড়ার আব্দুল আলিমের কন্যা এবং দামুকদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শেণির ছাত্রী। তার মরদেহ উদ্ধার করে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানিয়েছেন, মেধাবী শিক্ষার্থী ছিল উর্মি খাতুন। সে দামুকদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে লেখাপাড়ার পাশাপাশি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কুরআন বিভাগের ছাত্রী ছিল। মঙ্গলবার সকাল ৯টায় সে দামুকদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পরদিন বুধবার বিকেলে তার মরদেহ পাশের লিচু বাগানের ছোট একটি লিচু গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় এলাকাবাসী দেখতে পায়। পরে ভেড়ামারা থানা পুলিশ তার লাশ উ্দ্ধার করে।

মোকারিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল খালেক জানিয়েছেন, নিহত উর্মির সাথে প্রেমের সর্ম্পক ছিল ওই এলাকারই আব্দুল মালেকের বখাটে পুত্র হিটু’র (১৫)। ঘটনার আগের দিন তারা দু’জনই পরীক্ষা দেওয়ার জন্য স্কুলে যায়। কিন্তু তারা পরীক্ষা না দিয়ে নিখোঁজ হয়। পরের দিন বুধবার উর্মির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে প্রতারক প্রেমিক হিটু।

ধারণা করা হচ্ছে, প্রেমিক হিটু প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে তার বন্ধুরা মিলে উর্মিকে হত্যা করার পর তাকে লিচু গাছে ঝুলিয়ে দেয়। 

ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচর্জ আমিনুল ইসলাম জানিয়েছেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের পর জানা যাবে হত্যার প্রকৃত রহস্য। এ ব্যাপারে ভেড়ামরা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রের্কড করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ