বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ঝালকাঠিতে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব ॥ ৭ দিনে দেড় শতাধিক রোগী হাসপাতালে

ঝালকাঠি সংবাদদাতা : ঝালকাঠিতে দিনে গরম-রাতে শীত এরমধ্যে আবার কখনও হাল্কা গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি। এ কারণে ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ৭ দিনে দেড় শতাধিক রোগী ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি এবং শতাধিক রোগী বর্হিবিভাগে চিকিৎসা নিয়েছে। এর মধ্যে শিশু ও ভয়স্ক রোগীদের সংখ্যা অনেক বেশি। রোববার সকালে গোলাম মোস্তফা নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। বৃদ্ধ গোলাম মোস্তফা নলছিটি উপজেলার নাচনমহল ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা। স্বজনরা জানান, শনিবার বিকেলে গোলাম মোস্তফা ডায়রিয়া আক্রান্ত হলে তাকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে এনে সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক সংকট ও দায়িত্বরত সেবিকাদের অবহেলার কারণে যথাযথ চিকিৎসা না পেয়ে তিনি রোববার সকাল ৯ টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ অক্টোবর ৩২জন, ১৩ অক্টোবর ২৮জন, ১৪ অক্টোবর ১১জন, ১৫ অক্টোবর ২০জন, ১৬ অক্টোবর ১৪জন, ১৭ অক্টোবর ১৯জন, ১৮ অক্টোবর ১৭জন এবং সর্বশেষ ১৯ অক্টোবর রোববার সকাল ১০টা পর্যন্ত ১৮জন রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছে। তালিকাভুক্ত রোগীদের মধ্যে ১ জনের মৃত্যু এবং ৮ জন রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ গোলাম ফরহাদ জানান, মওসুমী আবহাওয়া পরিবর্তনের ফলে মানুষ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এরমধ্যে খাদ্যে বিষক্রিয়া ও সঠিক হজম শক্তি না হওয়ার ফলে ডায়রিয়া আক্রান্ত হচ্ছে। চিকিৎসক সংকটের কথা স্বীকার করে তিনি আরো জানান, চিকিৎসক সংকট থাকা সত্ত্বেও আমরা রোগীদের সঠিক চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ