বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

ভাসানীর ইতিহাস মুছে ফেলে ক্ষমতার মসনদ রক্ষা করা যাবে না -অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান

জাতির এক নিদারুন ইতিহাসের হিমালয় ও স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা, মহামানব ভাসানীর ইতিহাস মুছে ফেলা যাবে না হুশিয়ার করে জাগপার সভাপতি অধ্যাপিকা রেহানা প্রধান বলেছেন, মওলানা ভাসানী ও বাংলাদেশ রাষ্ট্রের ইতিহাস এক অভিন্ন ইতিহাস। মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী স্বাধীকার আন্দোলন, বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্নদ্রষ্টা ও মজলুম মেহনতি কৃষক-শ্রমিক জনতার অধিকার আদায়ের এক মহান নেতা। তিনি জুলুমবাজ শাসকগোষ্ঠির বিরুদ্ধে আজীবন সংগ্রাম চালিয়েছেন। নিজের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে মানুষের জন্য জীবন উৎসর্গ করেছেন। তার বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ও প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর আমাদের জন্য প্রেরণার উৎস। সুতরাং ভাসানীর ইতিহাস মুছে ফেলে ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করা যাবে না। তিনি বলেন, স্বাধীনতা-গণতন্ত্র ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় মওলানা ভাসানী এক উজ্জ্বল ইতিহাস। ভিনদেশী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তার প্রতিবাদমুখর হুংকার অত্যাচারী শাসকগোষ্ঠীর ক্ষমতার মসনদ কেপে উঠেছিল। কিন্তু নিয়তির নির্মম ইতিহাস। স্বাধীনতার এই মহামানবের ইতিহাস আজ মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। তিনি আরো বলেন দেশ ও জাতির স্বার্থ রক্ষায় এবং গণতন্ত্র ও মানবতার শত্রুদের বিরুদ্ধে যুগ যুগ ধরে মওলানা ভাসানী যে সংগ্রাম ও আদর্শ শিখিয়েছেন তার ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আগামী দিনে দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষার সংগ্রামে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়তে হবে।
গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টায় আসাদ গেট দলীয় কার্যালয়ে ‘মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী ও শোষিত মানুষের অধিকার’ শীর্ষক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় বক্তব্য রাখেন জাগপার সিনিয়র সহ-সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, মাস্টার এম.এ মান্নান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক আসাদুর রহমান খান, দপ্তর সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, যুব বিষয়ক সম্পাদক বেলায়েত হোসেন মোড়ল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইনসান আলম আক্কাছ, জাগপার কেন্দ্রীয় নেতা আশরাফ আলী খান, টাঙ্গাইল জেলা জাগপা নেতা নুরুল ইসলাম ও জাগপা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. মজনু প্রমুখ।
এদিকে গতকাল সকাল ১০টায় টাঙ্গাইল সন্তোসে মওলানা ভাসানীর মাজারে জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান এর নেতৃত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ