বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

শ্রীপুরে একটি ব্যাটারি তৈরির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

গাজীপুর সংবাদদাতা: গাজীপুরের শ্রীপুরের কেওয়া এলাকায় একটি ব্যাটারী তৈরির কারখানায় বুধবার সকালে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিটের কর্মীরা প্রায় দেড় ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।
শ্রীপুর ফায়ার স্টেশনের ওয়্যার হাউস ইন্সপেক্টর মো. জিহাদ মিয়া জানান, বুধবার সকালে শ্রীপুর উপজেলার কেওয়া এলাকার গেলি ইন্ডাস্ট্রিয়াল কোম্পানী লিমিটেডে আগুন লাগে।
মুহূর্তের মধ্যেই আগুন  কারখানায় সেমিপাকা এক তলা ভবনে ছড়িয়ে পড়ে।
খবর পেয়ে শ্রীপুর ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিটের কর্মীরা গিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় দেড়  ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নেভায়। আগুনে ককশিট, কার্টুন, তৈরি ব্যাটারি ও ব্যাটারি তৈরির কাঁচামালসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে। আগুনে কেউ আহত হয় নি।
আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির প্রকৃত পরিমাণ তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস।
বাঁশ বিতরণ
সৈয়দপুর (নীলফামারী): নীলফামারীর সৈয়দপুরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে মানব কল্যাণ সংঘের বাঁশ বিতরণ করা হয়েছে।
৩১ মে দুপুরে কামারপুকুর ইউনিয়নের দক্ষিণ অসুরখাই গ্রামে বিদ্যুৎ মিটার বিষ্ফোরণে অগ্নিকান্ডে ৩০ টি পরিবারে ঘর পুড়ে ভষ্মীভূত হয়ে যায়।
অসহায় দুস্থ পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মানব কল্যাণ সংঘ। মানব কল্যাণ সংঘের আয়োজনে ১০০টি বাশ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়।
এ সময় সংগঠনের সভাপতি শিক্ষক গোলাম মোস্তফা ও সহসভাপতি ইলিয়াছ আলী, সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার খায়রুল ইসলাম রতন, কোষাধ্যক্ষ মাওলানা ময়নুল ইসলাম, আবুল কাশেম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার খায়রুল ইসলাম রতন বলেন, অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ২০ দিন যাবত খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।
তাদের মাথা গোজার ঠাই হিসেবে আমরা ১০০টি বাঁশ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ