বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

অভিযোগ ছাড়াই আটকে উদ্বেগ

যশোরে ৫ শিবির নেতাকে  গ্রেফতারের পর অস্বীকার ও তাদের আদালতে হাজির না করায় উদ্বেগ প্রকাশ এবং অনতিবিলম্বে তাদের সন্ধান  দাবি করে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। 

গতকাল বৃহস্পতিবার দেয়া যৌথ বিবৃতিতে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, গত বুধবার দুপুর ১টায় যশোর ঝিকরগাছা থানার ছুটিপুর ইউনিয়ন থেকে শিবির নেতা আবুল কাসেম, মো. আকরাম আলী, মো. মেহেদি হাসান মো. আল আমিন ও মো. আকীমূল হাসানকে  গ্রেফতার করে পুলিশ। খবর পেয়ে তাদের পরিবারের সদস্যরা থানায় যোগাযোগ করলে প্রথমে পুলিশ তাদেরকে  গ্রেফতারের কথা স্বীকার করলেও পরে তা অস্বীকার করে। আইনের বিধান লঙ্ঘন করে এখন পর্যন্ত তাদের আদালতে হাজির করা হয়নি। আমরা বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি  গ্রেফতারের পর তাদেরকে যশোর ডিবি অফিসে রাখা হয়েছে। প্রকাশ্যে মেধাবী ছাত্রদেরকে  গ্রেফতার করে অস্বীকার করা পুলিশের কোন দায়িত্বের মধ্যে পড়ে তা আমাদের বোধগম্য নয়।  গ্রেফতারের পর অস্বীকার ও আদালতে না তোলার পেছনে কোন ষড়যন্ত্র আছে বলে আমরা মনে করি। এর আগেও যশোরে এমনভাবে দুই ছাত্রকে  গ্রেফতারের পর অস্বীকার করে পরে রাতের আঁধারে পায়ে গুলী করেছে পুলিশ।  গ্রেফতারের পর দীর্ঘ দিন পেরিয়ে গেলেও রেজুয়ান নামে একজন শিবির কর্মীকে আজও পর্যন্ত আদালতে হাজির করেনি পুলিশ। পুলিশ কর্তৃক এমন ধারাবাহিক অমানবিক আচরণে তাদের পরিবারের সাথে সাথে আমরাও গভীর ভাবে উদ্বিগ্ন।

 নেতৃদ্বয় বলেন, কোন অভিযোগ ছাড়াই নিরপরাধ ছাত্রদেরকে  গ্রেফতারের আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সেই সাথে আমরা হুঁশিয়ার করে বলতে চাই, পুলিশের পোশাকে এই বেআইনি কর্মকান্ড বন্ধ করুন। তাদের নিয়ে কোন প্রকার নাটক ছাত্রশিবির মেনে নিবে না। অবিলম্বে আমরা  গ্রেফতারকৃত শিবির নেতাদের অবস্থান নিশ্চিত ও তাদের আদালতে হাজিরের মাধ্যমে আইনি প্রক্রিয়ায় তাদের নিঃশর্ত মুক্তির  দাবি জানাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ