শনিবার ১৬ অক্টোবর ২০২১
Online Edition

ভবিষ্যতের কথা ভেবেই দলে নেই মুস্তাফিজ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ভারতের বিপক্ষে ১৫ সদস্যে দলে নেই মুস্তাফিজুর রহমান। তবে ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই ভারতের বিপক্ষে টেস্টে নেয়া হয়নি মুস্তাফিজকে। এমনটাই জানিয়েছেন কোচ, নির্বাচক ও অধিনায়ক। দল ঘোষণার ঠিক এক ঘণ্টা আগে মুস্তাফিজের সঙ্গে ড্রেসিংরুমের সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন ও হাবিবুল বাশার। হয়তো মুস্তাফিজের মানসিক অবস্থা সম্পর্কে জানতেই কথা হচ্ছিল তাদের। অনেকদিন ধরে লম্বা ফরম্যাটের ক্রিকেটে খেলছেন না তিনি। চলতি বিসিএলে একটি ম্যাচে তাকে খেলানোর পরিকল্পনা রয়েছে নির্বাচকদের। এর পরই বোঝা যাবে, মুস্তাফিজ লম্বা পরিসরের ক্রিকেট খেলতে কতটা প্রস্তুত। মুস্তাফিজকে না পেয়ে কিছুটা হতাশ বাংলাদেশের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। যদিও ভবিষ্যতের জন্য এমন সিদ্ধান্ত ভালো হয়েছে বলে জানালেন মুশফিক। মুশফিক বলেন ‘মুস্তাফিজের মতো বোলারকে সব অধিনায়কই পেতে চাইবেন। কিন্তু সে মাত্রই ইনজুরি থেকে ফিরেছে। পুরো ফিট হয়তে কিছুটা সময় লাগবে। ইনজুরি থেকে ফিরেই একজন বোলার সরাসরি টানা পাঁচ দিন খেলতে পারে না। এটা কঠিন। টেস্ট খেলতে গিয়ে সে যদি দীর্ঘ সময় ইনজুরিতে পড়ে, সেটা খারাপ হবে। মুস্তাফিজ কবে টানা অনেক ওভার বোলিং করেছে, আমার মনে নেই। আমার মনে হয়, তাকে বিশ্রামে রেখে যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, এটাই ঠিক সিদ্ধান্ত। ’ অধিনায়ক হিসেবে মুশফিক ফিট মুস্তাফিজকে চান সব সংস্করণে, ‘আমি টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে তাকে দলে চাই। শুধু এই ফরম্যাটে নয়, সব ফরম্যাটেই। তবে ফিট মুস্তাফিজকে নিয়মিত পাওয়াটা বেশি দরকার। সামনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ আছে। এরপর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। তার পর আরও খেলা। সেখানে মুস্তাফিজকে আমাদের খুব দরকার। ’ প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘ফিজিও বলেছেন শারীরিকভাবে ও ফিট। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে লম্বা সময় ধরে বোলিং করতে হয়, এ বিষয়গুলো এখনও ওর মধ্যে আসেনি। আমরা ম্যানেজমেন্টসহ সবার সঙ্গে কথা বলেই মুস্তাফিজের ব্যাপারে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ওকে নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা বিসিএলে যেকোনও এক রাউন্ডে খেলানোর। অনেক দিন ধরে ও খেলার মধ্যে নেই। ’ টেস্ট ক্রিকেটে যে মুস্তাফিজ খুব তাড়াতাড়িতেই ফিরবেন, সেটাও জানিয়ে রাখলেন সাবেক এই ক্রিকেটার। তিনি বলেন, ‘মুস্তাফিজ আমাদের সম্পদ। ওকে আমাদের ধীরে ধীরে ব্যবহার করতে হবে। সামনে অনেক ম্যাচও আছে। আমার বিশ্বাস খুব তাড়াতাড়ি সে ফিরে আসবে। ’ টেস্টে খেলার মতো ফিট না হলে ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে কেন মুস্তাফিজকে স্কোয়াডে রাখা হয়েছিল,এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচক বলেছেন, ‘আমরা চিন্তা করেছিলাম ক্রাইস্টচার্চে আমাদের বিকল্প খেলোয়াড় খুব বেশি ছিল না। তাই মুস্তাফিজ যেন সাহায্য করতে পারে সেজন্য ১৪ জনের স্কোয়াডে রাখা হয়েছিল। ’ এদিকে পুরো ফিট মুস্তাফিজকে শ্রীলংকা সফরে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী প্রধান কোচ হাথুরু সিংহে। তিনি বলেন ‘মুস্তাফিজের বড় একটি অস্ত্রোপচার হয়েছে। ফিরতে সময় লাগবেই। চোটের পর ফেরার প্রক্রিয়াতেই আছে ও। নিউজিল্যান্ডে সে ১২৭-১২৮ কি.মি. গতিতে বল করেছে। আগে ১৪০ করতো, পুরোপুরি ফিট হতে একটু সময় তো লাগবেই। আমরা আশা করছি শ্রীলংকার বিপক্ষে পুরো ফিট অবস্থায় তাকে পাওয়া যাবে। ’ প্রধান কোচ মুস্তাফিজের কথার গুরুত্ব দিতে চান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ফিজিও ও ট্রেনারদের কাছ থেকে আমার ইতিবাচক সব রেজাল্ট পেয়েছি। কিন্তু খেলোয়াড়দের চাপের মধ্যে খেলতে হয়, চাপের মধ্যে খেলেই নিজের দক্ষতা প্রদর্শন করতে হয়। মুস্তাফিজের ব্যাপারেও তাই। মুস্তাফিজ নিজে কেমন অনুভব করছে, সেটাকেই বেশি গুরুত্ব দিতে হয়েছে আমাদের। কারণ মেডিক্যালি আমরা কিছু পাইনি। ওর কথাই তাই শুনতে হয়েছে। কোনও খেলোয়াড়ই বড় একটা ইনজুরির পর একটু অনীহা থাকে, সেটা যে ধরণের ইনজুরিই হোক না কেন। হয়তো কিছুদিনের মধ্যেই মুস্তাফিজের এটা কেটে যাবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ