রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

টি-টোয়েন্টি সিরিজও হারলো মাশরাফিরা

স্পোর্টস রিপোর্টার : ওয়ানডে সিরিজের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজও হারলো বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করেছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। ফলে ওয়ানডে সিরিজের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজেও হোয়াটওয়াশ হওয়ার পথে আছে টাইগাররা। গতকাল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি- টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে সমতায় ফেরার টার্গেট নিয়ে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু এই ম্যাচেও হার দিয়ে মাঠ ছাড়ে মাশরাফিরা। ফলে টি-টোয়েন্টি সিরিজটিও হাতছাড়াই হয়েছে বাংলাদেশের। গতকাল টস হেরে আগে ব্যাট করে কলিন মুনরোর সেঞ্চুরিতে ২০ ওভারে ১৯৫ রানের বিশাল স্কোর করে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৪৮ রানে অল আউট হয় বাংলাদেশ। ফলে ৪৭ রানে জয় পায় নিউজিল্যান্ড। গতকাল টস জিতে আগে বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন। আর প্রথমে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই তুলে নেন ওপেনার লুক রনকির উইকেটটি। কিন্তু তাতে খুব একটা অসুবিধে হয়নি স্বাগতিকদের। কলিন মানরো একাই দলকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। আর তার করা শতকে বাংলাদেশের সামনে তারা ১৯৬ রানের কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয়। কিউইদের হয়ে শুরু থেকেই মানরো দুর্দান্ত খেলছিলেন। তিনি এদিন ৭টি চার ও ৭টি ছক্কার মারে ১০১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন। ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারও পান তিনি। আর টম ব্রুস হার না মানা ৫৯ রানের চমৎকার একটি ইনিংস খেলেছেন। এ ইনিংসে তিনি ৩৯ বলে ৫টি চার ও ১টি ছক্কার মার হাঁকান। তবে কিউইদের হয়ে আর কোন ব্যাটসম্যানই উল্লেখযোগ্য স্কোর করতে পারেনি। মুনরো ও ব্রুসের পর অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন শুধু দুই অঙ্কের ঘরে রান নিতে পেরেছেন। বাংলাদেশের হয়ে রুবেল হোসেন ৩ উইকেট তুলে নেওয়ার পাশাপাশি একটি রান আউটও করেছেন। ৪ ওভার বল করে তিনি এদিন রান খরচ করেছেন ৩৭টি। এছাড়া ১টি করে উইকেট পেয়েছেন মাশরাফি, সাকিব এবং মোসাদ্দেক হোসেন। জয়ের জন্য বাংলাদেশের সামনে টার্গেট ছিল ১৯৬ রান। টার্গেটটা যে কঠিন ছিল তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। আর ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১ রানেই বাংলাদেশ হারায় ইমরুল কায়েসের উইকেটটি। এরপর সাব্বির ও তামিম মিলে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে পতালার চে” া করেছিলেন। তবে দলীয় ৩৪ রানে তামিমের রান আউটে সেই আশাও ভেস্তে যায়। এরপর সবাই যখন সাকিবের দিকে তাকিয়ে তখ তিনিও মাত্র ১ রানেই পথ ধরেন প্যাভিলিয়নের। পঞ্চম উইকেট জুটিতে মাঠে নামেন সৌম্য সরকার। তবে তিনি এদিন রানে ফেরার আভাসই দিচ্ছিলেন। সাব্বিরের সঙ্গে গড়ে তুলেন দারুণ এক জুটি। তাদের জুটি থেকে আসে ৬৪ রান। সৌম্য ২৬ বলে তিনটি চার ও ২টি ছয়ের মারে ৩৯ রান করে ফিরেন। আর এ জুটি ভাঙার পরে বাংলাদেশ আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। এরপর সাব্বিরও ৩২ বলে ৪৮ রান করে বিদায় নেন। এ ইনিংসে তিনি ৩টি চার ও ৩টি ছক্কার মার হাঁকান। পরে ধারাবাহিক উইকেট পতনে বাংলাদেশের ইনিংস ১৪৮ রানেই থেমে যায়। কিউইদের হয়ে ইশ সোধি ৩টি এবং উইলিয়ামসন ২টি উইকেট তুলে নেন। এছাড়া স্যান্টনার, বোল্ট, হুইলার ও ১টি করে উইকেট তুলে নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
নিউজিল্যান্ড : ১৯৫/৭ (২০ ওভার)
বাংলাদেশ : ১৪৮/১০ (১৮.১ ওভার)
ফল : নিউজিল্যান্ড ৪৭ রানে জয়ী।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ : কলিন মুনরো (নিউজিল্যান্ড)।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ