বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১
Online Edition

বেনাপোলে বেড়েছে আমদানি ও রাজস্ব আয়

খুলনা অফিস : চলতি (২০১৬-১৭) অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে পণ্য আমদানি বেড়েছে। এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে রাজস্ব আহরণ। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, উচ্চ শুল্কযুক্ত পণ্য আমদানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বন্দরের রাজস্ব আয় বেড়েছে। পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময়ে অন্য ব্যবসাপণ্যের আমদানিও বেড়েছে।
বেনাপোল স্থলবন্দর সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে মোট চার লাখ ১৮ হাজার ৬০২ দশমিক ৫৬ টন পণ্য আমদানি হয়েছে। গত বছরের একই সময়ে এ বন্দর দিয়ে আমদানির পরিমাণ ছিল ৪ লাখ ১০ হাজার ২৪৩ দশমিক ৫ টন। এ হিসাবে অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় পণ্য আমদানি বেড়েছে ৮ হাজার ৩৫৯ দশমিক ৬ টন।
অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে বেনাপোল স্থলবন্দরে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য ছিল এক হাজার ৩৮৯ কোটি ৯২ লাখ টাকা। এর বিপরীতে আদায় হয়েছে দুই হাজার ৮৯০ কোটি ২৪ লাখ টাকা। অর্থাৎ রাজস্ব আহরণ লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে এক হাজার ৫০০ কোটি ৩২ লাখ টাকা বেশি হয়েছে।
বেনাপোল স্থলবন্দর কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের জুলাইয়ে মোট পণ্য আমদানি হয়েছে ৫৩ হাজার ৫৯৭ দশমিক ৪২ টন। একইভাবে আগস্টে ৭৬ হাজার ৮৩২ দশমিক ৬১, সেপ্টেম্বরে ৫৫ হাজার ৩৫৩ দশমিক ১২, অক্টোবরে ৬৮ হাজার ৮৭০ দশমিক ৬৬ ও নভেম্বরে ৯৫ হাজার ৭৮ দশমিক ৪৯ টন পণ্য আমদানি হয়েছে।
আমদানি বৃদ্ধি প্রসঙ্গে যশোর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি ও আমদানিকারক মিজানুর রহমান খান বলেন, ‘অক্টোবর থেকে মে মাস পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা বেশি পণ্য আমদানি করে থাকেন। এ সময়টি ব্যবসার জন্য বেশ ভালো।’
সম্প্রতি পণ্য আমদানি বাড়লেও ব্যবসায়ীদের নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বেনাপোল স্থলবন্দর সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক জামাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘কাস্টমস কর্তৃপ আমদানিকৃত পণ্যের শুল্ক প্রায় দ্বিগুণ বাড়িয়েছে। এ কারণে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। আমদানি বাণিজ্যে এর দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব পড়তে পারে।’
এদিকে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে বন্দরকে আরো গতিশীল করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার শওকত হোসেন। তিনি বলেন, ‘উচ্চ শুল্কযুক্ত পণ্য আমদানি বেড়েছে, যা রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখছে।
আমদানি আরো বাড়ানোর জন্য আমরা ব্যবসায়ীদের সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে আসছি। তারা যেন কোনো ধরনের হয়রানি ছাড়া পণ্য খালাস করতে পারেন সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ