শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

রেকর্ড রান করেও জিততে পারলো না পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক : ব্যাটিংয়ে দুরন্ত লড়াই করেও ব্রিসবেন টেস্টে ৩৯ রানের হারের আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে পাকিস্তানকে। যে মাঠে কোনো দল ৩৭০ রানের বেশি তাড়া করতে পারেনি সেই মাঠেই ৪৫০ রান করেও হেরেছে পাকিস্তান। অস্ট্রেলিয়ার ছুড়ে দেয়া ৪৯০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে আসাদ শফিকের ১৩৭ রানের চমৎকার ইনিংসের বদৌলতে ৪৫০-এ থেমে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। ফলে জয়ের আনন্দ নিয়েই মাঠ ছাড়ে অজি দল। মিচেল স্টার্কের বলে দলীয় ৪৪৯ রানে আসাদ শফিক আউট হওয়ার পরই মূলত হেরে যায় পাকিস্তান। কেননা আর এক রান যোগ করেই দলের শেষ উইকেটিও হারায় তারা। আসাদ শফিক ১৩৭, আজহার আলী ৭১ আর ইউনিস খান ৬৫ রান করে দলীয় স্কোরে অবদান রাখেন। তবে শফিকের ইনিংসটির একটু বিশেষ গুরুত্ব, কেননা তিনি ৩৩৪ মিনিট সময় ধরে ছিলেন ক্রিজে। এ সময় তিনি বল মোকাবিলা করেন ২০৭টি। তিনি ১৩টির চার একটি ছক্কার মারে ইনিংসটি সাজান। তবে তার এ দুরন্ত ইনিংসের পরও দল জয় পায়নি তার দল। স্টার্কের বলটি ঠিকঠাক মতো খেলতে পারেননি শফিক। বলটি ক্যাচে পরিণত হলে তা তালুবন্দি করেন ডেভিড ওর্য়ানার। আর এর পরেই স্টিভেন স্মিথের থ্রোতে রান আউটের শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন ইয়াসির শাহ। ফলে ইতিহাস গড়ে ম্যাচটি জেতা হলো না পাকিস্তানের। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে স্টার্ক একাই চারটি উইকেট নিয়েছেন। আর জ্যাকসন বার্ড ৩টি এবং নাথান লায়ন ২টি উইকেট নেন। এর আগে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে ৪২৯ রানের জবাবে পাকিস্তান মাত্র ১৪২ রানেই অলআউট হয়ে যায়। পরে অজিরা তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২০২ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে। পাকিস্তানকে ৪৮৯ রানের লক্ষ্য দিয়ে নিশ্চিন্তই ছিল অস্ট্রেলিয়া। তবে শফিকের ব্যাট জ্বলে ওঠায় কিছুটা আতঙ্কেই ছিল তারা। তবে জয়ের খুব কাছে গিয়েও হতাশ হতে হয়েছে পাকিস্তানকে। শেষ অব্দি অজিদেরই জয় হয়েছে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস - ৪২৯ (স্মিথ ১৩০, হ্যান্ডসকম্ব ১০৫, রেনশ ৭১, আমির ৪/৩১, ওয়াহাব ৪/২৬)।
অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ইনিংস - ২০২/৫ ডিক্লেয়ার (খাজা ৭৪, স্মিথ ৬৩, রাহাত আলী ২/১০)
পাকিস্তান প্রথম ইনিংস - ১৪২ (সরফরাজ ৫৯, স্টার্ক ৩/১৮, হ্যাজেলউড ৩/১৪, বার্ড ৩/১২)।
পাকিস্তান দ্বিতীয় ইনিংস - ৪৫০ (১৪৫ ওভার, শফিক ১৩৭, ইউনিস ৬৫, আমির ৪৮, ইয়াসির ৩৩, ওয়াহাব ৩০, সরফরাজ ২৪, স্টার্ক ৪/৩৮, বার্ড ৩/৩৩)।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ