সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

কলেজের রাঁধুনীকে ধর্ষণ করায় সাধারণ সম্পাদক তারেককে ইট দিয়ে অ-কোষ ছেঁচে দিলো জনতা ॥ দল থেকে বহিষ্কার

দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা) সংবাদদাতা : বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ কমিটি বিলুপ্ত করে দলীয় শৃঙ্খলা ভাঙ্গার দায়ে কমিটির সাধারণ সম্পাদক তারিক হাসান তারেককে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে শনিবার দুপরের পর বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি মো. সাইফুর রহমান সোহাগ সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন এক যুক্ত স্বাক্ষরে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আদেশ দেন। স্থায়ীভাবে বহিষ্কৃত তারিক হাসান তারেকের বিরুদ্ধে শনিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় হাজির হয়ে সরকারি কলেজ চত্বরের বাসিন্দা আতিয়ার রহমানের স্ত্রী রাঁধুনী রত্না (৪০) বাদী হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, শুক্রবার দিনগত গভীর রাতে তারেক মদপান করে এসে কলেজ চত্বরে বসবাসরত ত্নাকে তার ঘরে ঢুকে সর্টগান দেখিয়ে সে নিজে সম্পূর্ণ উলঙ্গ হয়ে ধর্ষণ করতে থাকে। সময় ত্না ছেলে কলেজ স্টাফ সবুজ (৩০) তারেককে আটকে ফেলে চেঁচামেচি করলে স্থানীয় জনতা ছুটে এসে ত্নাকে উদ্ধার করে। সময় তারেককে কয়েক জন সহযোগিতা করে তাদের রোষ থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

 নাম প্রকাশ না করা শর্তে এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানায়, উলঙ্গ হয়ে ধর্ষণ করতে গিয়ে সেই অবস্থায় ধরা পড়ার পর তারেককে ঘরের বাইরে এনে গণপিটুনি দিয়ে তারা মাথার চুল কেটে দেয় এবং সে সময় ইট দিয়ে তার অণ্ডকোষ ছেঁচে দেওয়া হয়। মারাত্মক আহত অবস্থায় তারেককে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় তারই কয়েকজন সহযোগী। সেখানে জনরোষের প্রভাব পড়ার ভয়ে তারা সকাল হওয়ার আগেই তারেককে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে পালিয়ে যায়। 

তারা আরো জানায়, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তারিক হাসান তারেক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার একজন প্রভাবশালী নেতার ভাইয়ের ছেলে সাবেক ছাত্রলীগের নেতা চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ পড়য়া অনেক ছাত্রীকে শহরের একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করতো। লোকলজ্জার ভয়ে তারা সরকারি কলেজে পড়া ছেড়ে দিয়ে অন্যত্র চলে যায়। এদের অত্যাচারে ভয়ে গ্রামের অনেক মেধাবী ছাত্রী কলেজে ভর্তি হওয়া থেকে বিরত থাকে। এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে নাবালিকা, মধ্য বয়সী এমনকি বৃদ্ধাদেরও তারা জোর পূর্বক ধর্ষণ করতো। পড়াশোনা নয় ধর্ষণ এদের নিত্যদিনের কর্মসূচি। 

চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ কমিটির সাবেক প্রচার সম্পাদক জাকির হুসাইন জ্যাকি কমিটি বিলুপ্ত হওয়ার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি জানান, শনিবার দুপুরের পর কমিটি বিলুপ্ত হওয়ার বিষয়টি সাবেক ছাত্রলীগ জেলা কমিটির সভাপতি শরিফ হোসেন দুদুর কাছ থেকে আরো নিশ্চিত হয়ে জানতে পারি। কলেজের রাঁধুনী রতœাকে ধর্ষণ করার সময় তারেককে স্থানীয় জনতা আটক করে। ওই সময়কার ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। সে কারণেই কলেজ ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত করা হয় বলে তিনি মনে করেন। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তোজাম্মেল হক জানান, শনিবার রাতে থানায় হাজির হয়ে চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ চত্বরের বাসিন্দা আতিয়ার রহমানের স্ত্রী রতœ (৪০) সাবেক ছাত্রলীগের চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজ কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্থায়ীভাবে বহিষ্কৃত তারিক হাসান তারেকের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলা নম্বর-২৭। তিনি আরো জানান, মামলায় ধর্ষক তারেকের সহযোগীদের বিরুদ্ধেও তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ