সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১
Online Edition

অনিয়মেয়র অভিযোগে ডিলারশীপ বাতিল

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সদর ইউনিয়নের জাকির হোসেন পন্ডিতের ডিলারশীপ বাতিল করা হয়েছে। শনিবার উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সঞ্জিত চাকমা ২৬১নং স্মারকে তার ডিলারশীপ বাতিল করেন। ডিলার, ইউপি চেয়াম্যান ও মেম্বররা যোগসাজসে কর্মসূচির দুইমাস অতিবাহিত হলেও কার্ড আটকে রেখে এখনও এক জনের নাম কেটে অন্য জনকে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।। উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের সুলতানা মীরা (৪৮) যার কার্ড নং ৬৬২ সেপ্টেম্বর মাসে চাল পেলেও অক্টোবর মাসের চাল মহিলা মেম্বর অন্য জনকে দেয়ার পায়তারা করেন।
এদিকে আজ শনিবার উপজেলার মিরুখালী, দাউদখালী ও বড়মাছুয়া ইউনিয়নে সরেজমিনে ঘুরে বিভিন্ন অনিয়ম সাংবাদিকদের চোখে পড়ে। বড়মাছুয়া ইউনিয়নের ইউনুস কাজীর দোকানে গিয়ে ৩৫২ জনের কার্ড ভুক্তভোগীর কার্ড থরে থরে সাজানো দেখা যায়। ডিলার ইউনুুুচ কাজী জানান, প্যানেল চেয়ারম্যান কাইউম এর নির্দেশে তিনি এ কার্ডগুলো চাল বিতরণের পর জমা রেখেছেন বলে দাবী করেন।
এ ব্যাপারে প্যানেল চেয়ারম্যান কাইউম জানান, ছিঁড়ে ও হারিয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় ডিলারকে কার্ড জমা রাখার জন্য বলা হয়েছে।
অপরদিকে একই অবস্থা দেখা যায় মিরুখালী ও দাউদখালী ইউনিয়নে। এ দু’টি ইউনিয়নের ১৩০৪জন ভুক্তভোগীর কার্র্ড ডিলারের কাছে জমা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে দাউদখালীর ডিলার ফারুক খান ও মিরুখালীর ডিলার জানান অফিসের স্বাক্ষর বাকী থাকায় কার্ডগুলো জমা রাখা  হয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম ফরিদ উদ্দিন জানান, ইতিমধ্যেই অনিয়মের কারণে একজনের ডিলারশীপ বাতিল করা হয়েছে এবং কার্ড ডিলারদের কাছে রাখা বে-আইনী। আমি খাদ্য নিয়ন্ত্রককে পাঠিয়ে হত দরিদ্র কার্ডধারীদের সন্ধ্যার মধ্যে বিলির ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ