মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

ভোটের তিন দিন পর ফলাফল দিলো ইসি

স্টাফ রিপোর্টার : তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তিন দিন পর ফলাফলের তথ্য প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এতে এ ধাপে ৬১০টি ইউপির মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিসহ ৩৯৫টিতে চেয়ারম্যান পদে জয় পেয়েছে। বিএনপি জয় পেয়েছে ৬০ ইউপিতে। এছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা ১৪টি ইউপিতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তৃতীয় ধাপে ভোট পড়েছে ৭৬ দশমিক ১২ শতাংশ।
গত ২৩ এপ্রিল ৬২৪ ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।
গতকাল মঙ্গলবার ইসির পরিচালক (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, তৃতীয় ধাপে অনেক দুর্গম এলাকায় ভোট হয়েছে। সেগুলোর ফলাফল কমিশনে পৌঁছতে সময় লেগেছে।
ইসির ফলাফলে দেখা গেছে, তৃতীয় ধাপে ২৯ ইউপিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় পেয়েছেন। এছাড়া ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয় পেয়েছেন ৩৬৬জন। সবমিলিয়ে আওয়ামী লীগের ৩৯৫জন নির্বাচিত হয়েছেন। অপরদিকে বিএনপির কেউ বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হননি। দলটির ৬০ জনই ভোটের লড়াইয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এ নির্বাচনে ১৩৯ ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন, যাদের বড় অংশ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেন। এছাড়া জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ও জমিয়তে উলাময়ে ইসলাম একটি করে ইউপিতে জয় পেয়েছে। ভোটকেন্দ্র স্থগিতের কারনে ৫টি ইউপির ফলাফল ঘোষণা করা হয়নি। এগুলোতে পুন:ভোটের প্রয়োজন হবে।
এর আগে ব্যাপক সহিংসতা, প্রাণহানি ও অনিয়মের মধ্য দিয়ে গত ২২ মার্চ ৭১২টি এবং ৩১ মার্চ ৬৩৯টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ হয়েছে। প্রথম ধাপে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত ৫৪ প্রার্থী এবং দ্বিতীয় ধাপে ৩৩ প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হন। সবমিলিয়ে দুই ধাপে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ৯৮৪টিতে এবং বিএনপি ১০৮টিতে জয় পেয়েছে।
ইসি জানিয়েছে, প্রথম পর্বে ৭৪ শতাংশ, দ্বিতীয় পর্বে ৭৮ শতাংশ ও তৃতীয় পর্বে ৭৭ শতাংশ ভোট পড়েছে।
দেশের সাড়ে চার হাজার ইউপি’র মধ্যে ছয় ধাপে ৪ হাজার ২৭৫ ইউপির ভোটের কথা রয়েছে। চতুর্থ ধাপে ৭৪৩ ইউপি ৭ মে, পঞ্চম ধাপে ৭৩৩ ইউপি ২৮ মে এবং শেষ ধাপে ছয় শতাধিক ইউপির ভোট ৪ জুন হওয়ার কথা রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ