ঢাকা, শনিবার 4 December 2021, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

মানিকগঞ্জে ছাত্রলীগ সভাপতির বাসা থেকে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত করার আসামি গ্রেফতার

মানিকগঞ্জ সরকারী দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ ডক্টর সৈয়দ মো: ইকবাল মঈজকে লাঞ্ছিত করার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তাসিন আহম্মেদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি তাপস সাহার বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তাপস সাহা ও সাইফুল ইসলাম নামে আরো একজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেওয়া হয়। এদিকে তাপস সাহাকে আটকের প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতা-কর্মীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় সদর থানার ওসির অপসারণ দাবি করে তারা।

দুপুরে জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীরা অবস্থান নিয়ে ওসির অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে। এসময় শহরে যানবাহন চলাচল ও দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষোভ চলাকালে সদর থানার ওসি আমিনুর রহমান পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে আসলে বিক্ষোভকারীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের সিনিয়র নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে থানা থেকে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি তাপস সাহাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুর রহমান শীর্ষ নিউজকে জানান,দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করার মামলার প্রধান আসামি সবুজ আহম্মেদসহ অন্যান্যরা তাপসের বাসায় লুকিয়ে আছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে তার বাসায় যাওয়ায় হয়। এসময় সবুজকে পাওয়া না গেলেও আরেক আসামি ছাত্রীগ নেতা তাসিন আহম্মেদকে ঐ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় সাইফুল নামে আরো একজনকে। এসময় তাপস তাদের আটকে বাঁধা দেয়। বলেন তাদের না নিয়ে আমাকে থানায় নিয়ে যান। পরে তিনি স্বেচ্ছায় থানায় চলে আসেন। জিজ্ঞাসাবাদের পর সাইফুলকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

তাসিনকে তিন দিনের রিমা- চেয়ে কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার মানিকগঞ্জ সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ ডক্টর সৈয়দ মো: ইকবাল মঈজকে কয়েকজন ছাত্রের হাতে লাঞ্ছিত হন। এ ঘটনায় তিনি বাদি হয়ে ছাত্রলীগ নেতা সবুজ আহম্মেদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।-শীর্ষ নিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ